বাঁকড়া মুন এডাস ইনষ্টিটিউটে নতুন বছরের প্রথম দিনেই নতুন বই বিতরণ

শিক্ষাঙ্গন
Spread the love

বিল্লাল হুসাইন , যশোর।।


তোমরাই জাতির ভবিষ্যৎ, 

তোমরাই বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের 

সোনার বাংলা গড়ার 

কারিগর।         

                         শিক্ষা নিয়ে গড়ব দেশ,

                          শেখ হাসিনার বাংলাদেশ।

 এই স্লোগানের মধ্য দিয়ে যশোরের বাকড়ায়  বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঘোষিত ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত ও সমৃদ্ধ জাতি গঠনের মুল চালিকাশক্তি। তোমরাই আদর্শ মানুষ হবে এবং বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ে তুলবে।

বুধবার (১ জানুয়ারি 2020 ইং) অত্র স্কুলের প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক, তিনি সকল শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে করে বলেন যে তোমরা আগামী দিনের ভবিষ্যৎ,তোমাদের নিয়ে আমাদের অনেক আসা রয়েছে। তোমরা আমার পাঠ্য প্রতিষ্ঠানের জন্য ফুটান্ত গোলাপ,তোমরা ছাড়া আমরা যেন অন্ধকারে বাস করি। 

তিনি আরো বলেন, দির্ঘদিন থেকে প্রাক-প্রাথমিক শ্রেণির শিক্ষার্থীদের জন্য ‘আমাদের বই’ ও খাতাসহ পঠন-পাঠন সামগ্রী বিনামূল্যে বিতরণ করা হয়।  ক্ষুদ্র ও শিশুদের জন্য নিজস্ব বর্ণমালা সম্বলিত মাতৃভাষায় পাঠ্যবই দেওয়া হচ্ছে। 

২০১০ সালের পর থেকে প্রতিবছর প্রধানমন্ত্রী আনুষ্ঠানিকভাবে শিক্ষার্থীদের হাতে পাঠ্যবই তুলে দেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বপ্ন উন্নত ও সমৃদ্ধ দেশ গড়ে তুলবে আজকের বাংলাদেশের ২ কোটি শিশু। তাই তাদের আলোকিত মানুষ হতে হবে।

তিনি আরও বলেন, সারাদেশের  কোমলমতি শিক্ষার্থীর মাঝে আজকের বিনামূল্যে পাঠ্যপুস্তক বিতরণ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নতুন বছরের উপহার। 

বাড়ি থেকে খালি হাতে এসেছিলে, আর হাত ভরে নতুন বই নিয়ে তোমরা বাড়ি ফিরে যাবে। আমি মনে করি, অবশ্যই তোমাদের মনটা খুশিতে ভরে যাবে। বর্তমান আওয়ামীলীগ সরকারের প্রশংসা করে বলেন, এদেশে এক সময় মানুষ অভাবের তারনায় বই কিনে ছেলে-মেয়ে লেখা-পড়া করাতে পারতোনা। তাদের স্বদিচ্ছার কারনে আজ বছরের প্রথম দিন শিশুরা নতুন বই হাতে পেয়েছে। তিনি শিক্ষার মান বাড়াতে সকল স্কুলের ছাত্র/ছাত্রী ও শিক্ষক-শিক্ষীকা ও শিক্ষার সাথে সংশ্লিষ্ট সকলকে আন্তরিক ভাবে কাজ করার আহবান জানান। পরে শিক্ষার্থীদের হাতে নতুন বই তুলে দেন।

এসময় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, মোঃ মোনায়েম হোসেন। অত্র স্কুলের ইনচার্জ। ও আরো উপস্থিত ছিলেন জনাব বিল্লাল হুসাইন,(সাংবাদিক) ও সভাপতি, কপোতাক্ষ সার্বিক গ্রাম উন্নয়ন সমবায় সমিতি লিঃ।

এ ছাড়া ও অত্র স্কুলের অবিভাবক সহ সকল শিক্ষক গন উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *