শ্যামনগরে প্রেমের টানে যুবক-যুবতীর পালিয়ে বিয়ে, অভিভাবক কতৃক থানায় মিথ্যা অপহরণ মামলা।

অন্যান্য
Spread the love

মোঃ ইসমাইল হোসেন :সাতক্ষীরা প্রতিনিধি। সাতক্ষীরা শ্যামনগর উপজেলা রমজাননগর ইউনিয়নের রমজাননগর গ্ৰামের যুবক-যুবতী রাতের আধারে বাড়ি থেকে পালিয়ে যাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। পালাতক যুবক রমজাননগর গাজী বাড়ির মোঃ আবু জাফর গাজীর ছোট ছেলে মোঃ ইমদাদুল হক (২২) ও যুবতী একই গ্ৰামের মোঃ আব্দুস সালাম গাজীর মেয়ে মোছাঃ কামরুন নাহার রুপা (১৯)। ইমদাদুল হক দীর্ঘদিন যাবত ঢাকাতে একটি গ্যাস কোম্পানিতে চাকরি করেন। ইমদাদুল ও রুপার সাথে দীর্ঘ দিন প্রেমের টানে শনিবার (৫ ফেব্রুয়ারি) রাতে ইমদাদুলের সাথে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে যোগাযোগ করে কামরুন নাহার নিজ বাড়ি থেকে ঢাকায় চলে যায়। ইসলামী শরীয়ত সম্মত ভাবে বিবাহ করেছে বলে জানান। এ ঘটনায় মেয়ের বাবা আব্দুস সালাম বাদী হয়ে ইমদাদুল হক ও তার বাবা আবু জাফর (৬০) ও বোন বিলকিস নাহার সহ ২/৩ জনের বিরুদ্ধে শ্যামনগর থানায় (৮ ফেব্রুয়ারি) একটি মিথ্যা অপহরণ মামলা দায়ের করেছেন। শ্যামনগর থানার মামলা নং ( ১৩/৫৫ )। কামরুন নাহার রুপার সাথে কথা হলে তিনি বলেন, ইমদাদুল ও আমার মধ্যে দীর্ঘদিনের প্রেমের সম্পর্ক চলছিল। এ বিষয়ে আমি একাধিক বার আমার বাবা,মা’কে বলেছি। তারা আমার সম্পর্ক মনে না নিয়ে অন্যত্র বিয়ে ঠিক করে। এজন্য আমি ইমদাদুলের সাথে মোবাইলে যোগাযোগ করে ঢাকায় চলে যাই এবং সেখানে আমাদের বিয়ে হয়েছে। আমি নিজের ইচ্ছায় বাড়ি থেকে চলে এসেছি আমার বাবা ইমদাদুল ও তার পরিবারের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা করেছে। বিষয়টি নিয়ে কামরুন নাহারের বাবার সাথে মোবাইল ফোনে কথা হলে তিনি জানান, আমি লোক মুখে জানতে পারি আমার মেয়ে’কে তারা তুলে নিয়ে গেছে। সেজন্য আমি থানায় একটি মামলা দায়ের করেছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *